ত্বক পরিচর্যার বিষয়ে কমবেশি সবাই সচেতন। কিন্তু দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বোঝেন না অনেকেই। দিনের পর দিন দাঁতের প্রতি অবহেলা করতে করতে যখন দাঁতে হলদেটে ভাব স্পষ্ট হয়, তখন টনক নড়ে। নামী সংস্থার পেস্ট ব্যবহার করেও লাভের লাভ কিছুই হয় না। কোন ঘরোয়া উপায় মেনে চললে ফিরে পাবেন ঝকঝকে হাসি?

>> প্রতিদিন ব্রাশ করার পরে দাঁতে এক টুকরো লেবু নিয়ে ঘষতে থাকুন। এতে যে শুধু আপনার দাঁত পরিষ্কার হবে তা নয় বরং দাঁতের রংও ফিরবে।

>> কেবল লেবু নয়, লবণও বেশ ভাল কাজ করে দাঁত পরিষ্কার করতে। দাঁত মাজা হয়ে গেলে আঙুলের ডগায় অল্প লবণ নিয়ে দাঁতে ঘষে নিন। এতে দাঁতের গোড়া শক্ত ও মজবুত হবে। দাঁতে রংও হবে ঝকঝকে।

>> দিনে দু’বার কলার খোসা নিয়ে ৫ মিনিট ধরে দাঁতে ঘষুন। ৭ দিনের মধ্যে আপনি আপনার দাঁতের রঙে পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

>> দাঁত সাদা করার আরও একটি পদ্ধতি হল বেকিং সোডার ব্যবহার। আপনার ব্যবহৃত টুথপেস্টের সঙ্গে সামান্য বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন এবং সেটি দিয়ে আপনার দাঁত ব্রাশ করুন। অল্প সময়েই আপনি আপনার দাঁতের হারানো জেল্লা ফিরে পাবেন।

>> এক চামচ নারকেল তেলে এক চিমটে হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে সেই মিশ্রণ দিয়ে ব্রাশ করুন। মিনিট পাঁচেক ব্রাশ করার পর আবার সালফেটহীন মাজন দিয়ে ব্রাশ করে নিন। দাঁত হবে চকচকে।

প্রতিদিন দুই বেলা করে ব্রাশ করার অভ্যাস করুন। খাওয়ার পরে দাঁতের গোড়ায় এবং মাড়িতে অনেক সময় খাওয়ার টুকরো লেগে থাকে। যা পরবর্তীকালে পচে গিয়ে দাঁতের উপর হলুদ আস্তরণ ফেলে দেয়। পরিষ্কার দাঁত চাইলে সিগারেটে সুখটান দেওয়া বন্ধ করতে হবে। সিগারেটে প্রচুর পরিমাণে নিকোটিন থাকে। যা দাঁতের ওপর হলদে আস্তরণ ফেলে দেয়।