সহস্রাধিক প্রাণ নেওয়া প্রলয়ংকরী ভূমিকম্পের ১২ ঘণ্টা হতে না হতেই তুরস্ক-সিরিয়ায় আবারও আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূকম্পন। তুরস্ক জানিয়েছে, দেশটির দক্ষিণপূর্ব অঞ্চলে আঘাত হেনেছে এ ভূমিকম্প। সিরিয়া জানিয়েছে, নতুন ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দামেস্ক শহরও। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

ইউরোপীয় ভূমধ্যসাগরীয় ভূকম্পন কেন্দ্রে (ইএমএসসি) জানিয়েছে, সোমবার দুপুরে আঘাত হানা ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৭। এর উৎপত্তিস্থল ছিল তুরস্কের কাহরামানমারাস থেকে ৬৭ কিলোমিটার উত্তর উত্তর-পূর্বে এবং কেন্দ্র ছিল ভূপৃষ্ঠ থেকে দুই কিলোমিটার গভীরে।

আরও পড়ুন>> ২৪ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প তুরস্কে

অবশ্য তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৬ এবং কেন্দ্র ছিল আরও কিছুটা গভীরে।

সোমবার ভোরের ভূমিকম্পে তুরস্ক-সিরিয়ায় এ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ৩০০ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে শুধু তুরস্কেই মারা গেছেন ৯১২ জন। দুই দেশ মিলিয়ে আহত হয়েছেন প্রায় সাত হাজার মানুষ।

আরও পড়ুন>> তুরস্কে রক্তের জন্য হাহাকার, সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান এ ঘটনাকে গত ৮৪ বছরের মধ্যে তুরস্কের সবচেয়ে বড় বিপর্যয় বলে অভিহিত করেছেন।

সোমবার ভোরে তুরস্ক-সিরিয়া সীমান্ত অঞ্চলে আঘাত হানা ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৮। গত এক শতাব্দীর মধ্যে এ অঞ্চলে আঘাত হানা অন্যতম শক্তিশালী ভূমিকম্প এটি।

আরও পড়ুন>> সংকট মোকাবিলার ওপর নির্ভর করছে এরদোয়ানের ভবিষ্যৎ

ভূমিকম্পে তুরস্কে প্রায় তিন হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন এরদোয়ান। ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনো বহু মানুষ আটকা রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকায় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।