অবশেষে দীর্ঘ জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আগামী মাসে অর্থাৎ জুলাইয়ে সৌদি আরব ও ইসরায়েল সফরে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আগামী সপ্তাহে হোয়াইট হাউজ সফরসূচি ঘোষণার পরিকল্পনা করছে। এ বিষয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর রয়টার্সের।

সূত্র জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ে সৌদির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে তার বৈঠক হতে পারে।

জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের একজন মুখপাত্র নিশ্চিত করে বলেছেন, ইসরায়েল ও সৌদি আরবে বাইডেনের সফরের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে খুব শিগগিরই বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে রোববার (১২ জুন) বাইডেন জানান, তিনি এখনো সৌদি আরব সফরের বিষয়টি চূড়ান্ত করেননি। এর আগে অর্থাৎ গত সপ্তাহে বাইডেন জানান, সৌদি সফরের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে।

বাইডেনের সৌদি সফরের বিষয়টি সামনে আসার পর এর বিরোধিতা করেন ডেমোক্রেটিক দলের আইনপ্রণেতারা ও কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন।

২০১৮ সালে বাইডেন সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানকে অগ্রহণযোগ্য ব্যক্তি বলে আখ্যায়িত করেন। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ও মার্কিন নাগরিক জামাল খাশোগির হত্যায় তার ভূমিকার জন্য তুরস্কে এ মন্তব্য করেন বাইডেন। যদিও সৌদি কর্তৃপক্ষ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সালমানের জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে।