নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে দুদলের সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ হয়ে এবার শহিদ মিয়া (২৮) নামে আরেক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার পাড়াতলী ইউনিয়নের কাছারিকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে চলমান সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছে।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় সংঘর্ষে ইয়াছিন মিয়া নামে (১৩) এক শিশুর মৃত্যু হয়।  ইয়াছিন কাছারিকান্দি গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের ছেলে।

এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ তিনজন হলেন রুবেল, বাহক ও সাগর। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, এলাকার আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চল পাড়াতলী ইউনিয়নের কাছারিকান্দি গ্রামের শাহ আলম মেম্বার ও সাবেক মেম্বার ফজলু সমর্থিতদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার সন্ধ্যায় দুদল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এ সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়াসহ গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এতে প্রতিপক্ষের গুলি ইয়াছিনের বুকে বিদ্ধ হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় আহত হন কমপক্ষে আরও ২০ জন। পরে চলমান সংঘর্ষে মঙ্গলবার সকালে প্রতিপক্ষের ছোড়া টেঁটাবিদ্ধ হয়ে শহিদ মিয়া নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

নরসিংদী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ রাসেল শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সকালে একজন মারা গেছেন। এর আগে আরও একজন মারা গেছেন। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা আছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কাজ করছে।