নড়াইলের কালিয়ায় মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে নবম শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে, কালিয়া পৌর এলাকার উথালী গ্রামের একটি বিলে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে নড়াইল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে তিন জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত তিন জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে সংশ্লিষ্ট থানায়। ওই রাতেই পুলিশ নিশান (১৭) নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। তার বাড়ি পৌর এলাকার উথালী গ্রামে। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ কালিয়া পৌরসভার মাউফ শেখ সহ আরো চার জনকে আটক করেছে।

ভূক্তভোগীর পরিবার থেকে জানা যায়, গতকাল সন্ধ্যায় একজন ফোন করে মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে যায়। একসময় তারা ফাঁকা স্থানে গেলে ছয়জন তাকে জোর করে ধরে বিলের মধ্যে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকারীরা ধর্ষণ শেষে তাকে সেখানেই ফেলে রেখে যায়। এ বিষয়ে ওই ছাত্রী পুলিশকে জানায়, তিনজন ধর্ষণ করার পর সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে।

উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশের পক্ষ থেকে তেমন কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।