মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দল ন্যশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) নেত্রী অং সান সু চি এবং দেশটির রাষ্ট্রপ্রতি উইন মিনতকে আটকের পর বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন বাংলাদেশ মিয়ানমারের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।

সোমবার ১ (ফেব্রুয়ারি) মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি গ্রেফতারের পর এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যমকে এসব কথা জানিয়েছেন।

তার আগে ১ ফেব্রুয়ারি ভোরে সেনাবাহিনীর অভিযানে অং সান সু চি এবং উইন মনিতসহ ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতাকে আটক করা হয়েছে বলে জানা যায়। সেনাবাহিনীরা দেশের বিভিন্ন প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর বাসায় গিয়ে তাদের ধরে নিয়ে যায় বলে তাদের পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে জানা যায়।

দেশটির রাজধানী নাইপিডো এবং প্রধান শহর ইয়ানগনের রাস্তায় দেখা গেছে সেনা সদস্যদের টহল দিতে। পাশাপাশি এসব নেতাদের আটকের পর দেশটির নিরাপত্তা ১ বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। সকল ধরণের সতর্কতা অবলম্বন করার জন্য বলা হয়েছে।