• সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
 ‘টাকা-ক্ষমতা কিছুই না, মানবজাতিকে বুঝিয়ে দিচ্ছে করোনায়’

টাকা, ক্ষমতা এগুলো কিচ্ছু না, করোনা ভাইরাস সেটা বুঝিয়ে দিচ্ছে বিশ্বে মানবজাতিকে- এ মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী। সম্প্রতি ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’র শুটিং শেষে জোহেনেসবার্গ থেকে কলকাতায় ফেরেন তিনি। ফিরেই নিজেকে ঘরবন্দি রেখেছেন। ঘরবন্দি জীবনে পহেলা বৈশাখ উদযাপন নিয়ে এ অভিনেতা বলেন, এ এক অকাল বৈশাখ। পহেলা বৈশাখ বললে কত স্মৃতি ভিড় করে আসে। আজ সে সব কোথায়? আজ আর কিছুই ভালো লাগছে না। ভাবিনি, কোনোদিন এরকম দিন এরকম সময়ে এই দিন কাটাতে হবে। শুধু বাঙালি হিসেবে নয়, সারাবিশ্ব এই করোনার ত্রাসে কেঁপে উঠছে। না দেখা, না চেনা ‘বায়োলজিক্যাল ওয়ার’।

পৃথিবীতে মানুষ যা নিয়ে বড়ই করে সেই টাকা আর ক্ষমতা যে আসলে কিছুই না, সেটা এই করোনাকালে উপলব্দি করছেন সবাই। বিষয়টি উল্লেখ করে প্রসেনজিৎ বলেন, ‌‌‘কী ভয়ানক যুদ্ধ! এই যুদ্ধে আমি আমার শত্রুকে চিনি না। ওই যে লোকে বলে, ‘আই অ্যাম সুপ্রিম! আমার অনেক টাকা আছে!’ এসব টাকা, ক্ষমতা কিচ্ছু না, বুঝিয়ে দিল এই করোনা, এই নববর্ষ। দু’জন আছেন- এক জন ঈশ্বর, আর একজন প্রকৃতি। তারাই পারবেন কিছু করতে।

ভারতীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই নায়ক আরও বলেন, ‘আজ সকাল থেকেই মনে হচ্ছে, আমরা সবাই বর্তমান নিয়ে কথা বলছি। কিন্তু আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলা উচিত এখন। খুব কঠিন লড়াই আসছে। যে যে প্রফেশনেই থাকুক না কেন, কঠিন লড়াই লড়তে হবে সবাইকে। আর এই লড়াইয়ের অস্ত্র প্রেম, মানুষের প্রতি ভালোবাসা। সামনের মানুষটাকে নিয়ে ভাবতে হবে। প্রত্যেক মানুষ যদি এভাবে ভাবতে পারে, লড়াইটা সহজ হবে। এই ভালোবাসাটা আমরা ভুলে গিয়েছিলাম। আমরা তো নিজেদের স্বার্থ নিয়ে এতদিন ছুটছিলাম। ছুটেই যাচ্ছিলাম! অন্য কারও কথা ভাবার সময় কোথায় আমাদের? এই ছুটতে গিয়ে অনেক কিছু হারিয়ে ফেলেছিলাম আমরা।’

কেএ/ডিএ