• সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
 আরও বিপাকে যুক্তরাষ্ট্র, করোনার হানা ২৬ যুদ্ধজাহাজে!

m

News

আরও বিপাকে যুক্তরাষ্ট্র, করোনার হানা ২৬ যুদ্ধজাহাজে!

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিষাক্ত ছোবলে বিপর্যস্ত বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকা। দেশটিতে ইতোমধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৮ লাখ ৮৬ হাজার ৭০৯ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫০ হাজার ২৪৩ জনের।

দেশটিতে যখন প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এর মধ্যেই আরও দুঃসংবাদ পেল দেশটি। এবার করোনাভাইরাস পৌঁছে গেছে মহাসাগরে মোতায়েন করা মার্কিন রণতরীতেও। 

মার্কিন নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের নৌ সেনাকর্মীরা প্রথমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এবার আরও ২৬টি রণতরীতে করোনা ধরা পড়েছে বলে জানা গেছে। 

মার্কিন নৌবাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সিএনএনকে জানিয়েছেন, বর্তমানে ২৬টি এমন যুদ্ধজাহাজ রয়েছে যাতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বাহিনীর সদস্যরা। তবে আক্রান্তদের নাম প্রকাশ করতে চাননি তিনি। এমনকি আক্রান্ত জাহাজগুলোর নামও প্রকাশ করা হয়নি।

এই ২৬টি জাহাজ ছাড়াও আরো ১৪টিতে করোনাভাইরাসের মারণ থাবা বসেছিল বলেও জানিয়েছেন সেই মার্কিন কর্মকর্তা। যদিও তার দাবি, সেই ১৪টি জাহাজে থাকা করোনা আক্রান্তরা সুস্থ হয়ে ওঠায় সংক্রমণ আর ছড়ায়নি। বর্তমানে আমেরিকার ২৯৭ রণতরী সমুদ্রে মোতায়েন রয়েছে। কমপক্ষে ৪০টি রণতরীতে করোনা ছড়িয়েছিল। 

বুধবার পর্যন্ত মার্কিন নৌবাহিনীতে কর্মরত তিন হাজার পাঁচশ ৭৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে। তাদের মধ্যে আটশ জনই রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিষাক্ত ছোবলে বিপর্যস্ত বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকা। দেশটিতে ইতোমধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৮ লাখ ৮৬ হাজার ৭০৯ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫০ হাজার ২৪৩ জনের।

দেশটিতে যখন প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এর মধ্যেই আরও দুঃসংবাদ পেল দেশটি। এবার করোনাভাইরাস পৌঁছে গেছে মহাসাগরে মোতায়েন করা মার্কিন রণতরীতেও। 

মার্কিন নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের নৌ সেনাকর্মীরা প্রথমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এবার আরও ২৬টি রণতরীতে করোনা ধরা পড়েছে বলে জানা গেছে। 

মার্কিন নৌবাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সিএনএনকে জানিয়েছেন, বর্তমানে ২৬টি এমন যুদ্ধজাহাজ রয়েছে যাতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বাহিনীর সদস্যরা। তবে আক্রান্তদের নাম প্রকাশ করতে চাননি তিনি। এমনকি আক্রান্ত জাহাজগুলোর নামও প্রকাশ করা হয়নি।

এই ২৬টি জাহাজ ছাড়াও আরো ১৪টিতে করোনাভাইরাসের মারণ থাবা বসেছিল বলেও জানিয়েছেন সেই মার্কিন কর্মকর্তা। যদিও তার দাবি, সেই ১৪টি জাহাজে থাকা করোনা আক্রান্তরা সুস্থ হয়ে ওঠায় সংক্রমণ আর ছড়ায়নি। বর্তমানে আমেরিকার ২৯৭ রণতরী সমুদ্রে মোতায়েন রয়েছে। কমপক্ষে ৪০টি রণতরীতে করোনা ছড়িয়েছিল। 

বুধবার পর্যন্ত মার্কিন নৌবাহিনীতে কর্মরত তিন হাজার পাঁচশ ৭৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে। তাদের মধ্যে আটশ জনই রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের।