ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

নিজের উদ্ভাবন নিয়ে ভয় ছিল স্টিভ জবসের

Rate this item
(0 votes)

নিজ প্রজন্মের অন্যতম সেরা উদ্ভাবক ছিলেন অ্যাপেল কোম্পানির কর্ণধার স্টিভ জবস। বর্তমান কমপিউটার প্রযুক্তির বাজারে তাঁর উদ্ভাবিত পণ্যগুলোই সেরার তালিকা দখল করে রেখেছে। কিন্তু ‘ডেইলি মেইল’-এর এক প্রতিবেদনে সম্প্রতি বলা হয়েছে, জীবনকালে স্টিভ জবস সব সময় এটা ভেবে ভয় পেতেন যে, তাঁর উদ্ভাবিত পণ্যগুলো খুব সহজেই পুরোনো হয়ে যাবে এবং লোকে সেগুলোকে আর মনে রাখবে না।
এক সাক্ষাত্কারে স্টিভ জবস বলেছিলেন, নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন যে দ্রুত হারে

বেড়ে চলেছে, তাতে মাত্র কয়েক বছরের মধ্যে তাঁর উদ্ভাবিত যন্ত্রগুলো অচল হয়ে যাবে।

১৯৯৪ সালে ৩৯ বছর বয়সে দেওয়া ওই সাক্ষাত্কারে জবস বলেন, ‘যখন আমার বয়স ৫০ বছর হয়ে যাবে, তখন আমার সব কাজ সেকেলে হয়ে যাবে।’

জবসের ওই সাক্ষাত্কার গত সপ্তাহে ইউটিউবে পোস্ট করা হয়েছে। ২০১১ সালে মৃত্যুর আগে তিনি আইপড, আইফোন ও আইপ্যাডের মতো জনপ্রিয় যন্ত্র উদ্ভাবন করে যান।

তিনি বলেন, ‘এটি (প্রযুক্তির বাজার) এমন কোনো ক্ষেত্র নয় যেখানে কোনো একজন শিল্পী এমন এক চিত্র আঁকবেন, যা মানুষ শত শত বছর ধরে দেখবে বা এমন কোনো গির্জাও কেউ তৈরি করবে না, যেটিকে মানুষ কয়েক শতাব্দী পরে প্রশংসা করবে।... এটি এমন এক ক্ষেত্র যেখানে প্রত্যেকে নিজের কাজটুকু করে এবং বছর দশেকের মধ্যে তা হারিয়ে যায় এবং সত্যিই ১০ বা ২০ বছর পর সেগুলোকে আর ব্যবহার করা যায় না।’

জবস বলেন, ‘পলি জমে জমে যেমন পাহাড় হয়, এটিও তেমন। আপনারা সবাই মিলে এক পাহাড় গড়ে তুলছেন, সেখানে আপনি আপনার পলিটুকু দিলেন। এভাবে ওই পাহাড়টিকে আপনি একটু উঁচু করলেন। ... কেউ যদি নিখুঁত চোখে না দেখে, তবে আপনার অবদানটি তাঁর চোখেই পড়বে না। কেবল বিরল ভূতাত্ত্বিকদের চোখেই আপনার পলিটুকু ধরা দিতে পারে।’

এভরিস্টিভজবসভিডিও নামের একজন ব্যবহারকারী এ সাক্ষাত্কারের ভিডিওটি পোস্ট করেছে। এটি ‘স্টিভ জবস: ভিশনারি এন্টারপ্রেনার’ শিরোনামের তথ্যচিত্রের খণ্ডিতাংশ। ১৯৯৪ সালে নেওয়া জবসের সাক্ষাত্কারের ওপরে ভিত্তি করে ওই তথ্যচিত্রটি তৈরি করা হয়েছে। এ সাক্ষাত্কার এত দিন অপ্রকাশিত ছিল।