ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

ব্ল্যাকবেরির ভবিষ্যৎ অ্যান্ড্রয়েডে?

Rate this item
(0 votes)

স্মার্টফোনের বাজারে এখন ধুঁকছে ব্ল্যাকবেরি। একসময়ের ‘রাজকীয়’ স্মার্টফোন হিসেবে খ্যাতি পাওয়া ব্ল্যাকবেরি ক্রমশ জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে। বাজারে গবেষণাপ্রতিষ্ঠান গার্টনারের তথ্য অনুযায়ী, স্মার্টফোনের বাজারে ক্রমশ তলানির দিকে নামছে ব্ল্যাকবেরি। বাজারে প্রথমবারের মতো ব্ল্যাকবেরিকে পেছনে ফেলেছে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এবং উঠে এসেছে অপারেটিং সিস্টেমের বাজারের তৃতীয় অবস্থানে। এ অবস্থায় মার্কিন বাজার বিশ্লেষকেরা ব্ল্যাকবেরিকে বাঁচাতে অ্যান্ড্রয়েডকে আঁকড়ে ধরার পরামর্শ দিচ্ছেন।

তবে ব্ল্যাকবেরির সংগ্রামের পক্ষেও রয়েছেন বেশ কয়েকজন বাজারবিশ্লেষক। ব্ল্যাকবেরির নতুন প্ল্যাটফর্ম ব্ল্যাকবেরি ১০ অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে আরও কিছুদিন সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে তারা।

মার্কিন বাজার বিশ্লেষকদের মতে, বর্তমানে বাজারের জনপ্রিয় অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমনির্ভর স্মার্টফোন তৈরি করলে নকিয়া ও ব্ল্যাকবেরি বাজার ধরতে পারবে।

বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েডের স্মার্টফোনের বাজারে একচ্ছত্র আধিপত্য ধরে রেখেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। বর্তমানে স্মার্টফোনের ৩১ দশমিক ৭ শতাংশ স্যামসাংয়ের দখলে। বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে সাত কোটি ১০ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি করেছে স্যামসাং। স্যামসাংয়ের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপল। ১৪ দশমিক ২ শতাংশ বাজারের দখল রেখেছে আইফোন। চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে তিন কোটি ১০ লাখ ইউনিট আইফোন বিক্রি করেছে অ্যাপল। বাজারে সেরা পাঁচ স্মার্টফোন নির্মাতা হিসেবে পরের স্থানগুলো যথাক্রমে এলজি, লেনোভো ও জেডটিইর দখলে। অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোনের বাজারে স্যামসাংয়ের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা জমাতে পারেনি আর কোনো ব্র্যান্ড। চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে এলজি, সনি, লেনোভোর মতো জনপ্রিয় ব্র্যান্ডগুলো স্যামসাংয়ের ধারে-কাছেও যেতে পারেনি। অবশ্য এ অবস্থায় নকিয়া বা ব্ল্যাকবেরির পক্ষে অ্যান্ড্রয়েড বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা কতটা যুক্তিসংগত হবে, সে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

সম্প্রতি নকিয়ার প্রধান নির্বাহী স্টিফেন ইলোপ এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, নকিয়ার অ্যান্ড্রয়েডে না যাওয়ার কারণ হচ্ছে স্যামসাং। অ্যান্ড্রয়েডের বদলে উইন্ডোজ পছন্দের কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, একটি নির্দিষ্ট হার্ডওয়্যার নির্মাতাপ্রতিষ্ঠানের অ্যান্ড্রয়েডপ্রীতিতে তিনি উদ্বিগ্ন ছিলেন। তাঁর কাছে মনে হয়েছিল ওই প্রতিষ্ঠানটি অ্যান্ড্রয়েডে প্রতিনিধিত্ব করবে। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে নকিয়া যেতে চাইলে তা দেরি হয়ে যাবে, যার ফলে বাজারে প্রতিনিধিত্ব করা সম্ভব হবে না।

সম্প্রতি নকিয়ার প্রধান নির্বাহীর সুরে সুর মিলিয়েছেন ব্ল্যাকবেরির প্রধান নির্বাহী থ্রস্টেন হেইন্স। ব্ল্যাকবেরিকে জনপ্রিয় করতে তিনি নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। প্রতিষ্ঠানটির ব্র্যান্ড নাম পরিবর্তন করেছেন। বর্তমানে ব্ল্যাকবেরিকে প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি করার পরিকল্পনাও করছে প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ। নতুন অপারেটিং সিস্টেম, নতুন স্মার্টফোনসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। কিন্তু সব উদ্যোগ বিফলে যেতে বসেছে। ব্ল্যাকবেরির এই ডুবতে বসা জাহাজকে অ্যান্ড্রয়েড কি বাঁচাতে পারবে?

এই প্রশ্নের উত্তরে মুঠোফোন বিক্রির হিসাব করা যেতে পারে। সাশ্রয়ী দামের মুঠোফোনের বাজারে লুমিয়া ও আশা সিরিজের মোবাইলে ভালো ব্যবসা করছে নকিয়া। বাজার গবেষণাপ্রতিষ্ঠান স্ট্র্যাটেজি অ্যানালাইটিকসের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে নকিয়া ভালো অবস্থানে রয়েছে; যদিও মুঠোফোন বিক্রির দিক থেকে স্যামসাং শীর্ষে। বাজারের দ্বিতীয় স্থানটি অ্যাপলের। গবেষকেরা বলছেন, অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের লাভের যৌথ হিসাব করলে দেখা যায় ছোট ছোট অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোন নির্মাতাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ধুঁকতে হচ্ছে। তাই অ্যান্ড্রয়েডকে কখনো প্রতিষ্ঠান টিকিয়ে রাখার উপায় হিসেবে বিবেচনা করা ঠিক হবে না।

বাজার গবেষকদের পরামর্শ হচ্ছে, ব্ল্যাকবেরি ও নকিয়ার জন্য এখনই অ্যান্ড্রয়েডে না গিয়ে নিজ নিজ অপারেটিং সিস্টেমকে জনপ্রিয় করতে কাজ চালিয়ে যাওয়া।