ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

লাপাজে ফুটবল খেলা একেবারে অসম্ভব : মেসি

Rate this item
(0 votes)

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩,৬০০ মিটার উঁচু যে কতটা ভয়ঙ্কর জায়গা তা হাড়ে হাড়ে বুঝতে পারছে আর্জেন্টিনা। লাপাজে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বলিভিয়ার কাছে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে দলের আর সব সদস্যের মতো লিওনেল মেসিও বিমর্ষ, মর্মাহত। বার্সেলোনা তারকার বিশ্বাস লাপাজে ফুটবল খেলা একেবারেই 'অসম্ভব'।

বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু আন্তর্জাতিক ফুটবল ভেন্যুতে খেলার দুঃসহ অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে মেসির মন্তব্য, "এটা খুবই যন্ত্রণাদায়ক। জানতাম যে খেলার কোনো একটা সময়ে আমরা আর পেরে উঠবো না। কিন্তু সেটা যে এরকমভাবে হবে তা আমরা কল্পনাও করতে পারিনি। সেখানে (লাপাজে) খেলা এক কথায় অসম্ভব।"

তার বিশ্বাস দুদলের বিপরীতমুখী পারফরম্যান্সের একটাই কারণ --- জায়গাটার উচ্চতা, "(আমাদের) প্রত্যেকের সেখানে সমস্যা হচ্ছিল। কিছুক্ষণ জোরে দৌড়ালেই দম ফিরে পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ছিল। সবাই দেখেছে ওদের

(বলিভিয়ার) গতি আমাদের চেয়ে বেশি ছিল। ওরা অনেক দ্রুত ছন্দে খেলেছে, আর যে কোনো জায়গা থেকে শট নিতেও পেরেছে।"

তবে সেদিনের দুঃসহ অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েই আগামী জুনে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ইকুয়েডরের বিপক্ষে ভালো খেলতে চাইছেন মেসি। ইকুয়েডরের রাজধানী কিটোতে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২,৮০০ মিটার উঁচুতে অনুষ্ঠেয় সেই ম্যাচের দিকেই এখন তাকিয়ে আছেন তিনি, "জুনের ম্যাচের জন্য এটা (লাপাজের ম্যাচটা) হতে পারে একটা ভালো শিক্ষা। আমাদের এখন সামনের দিকে তাকাতে হবে।"

মেসিদের এই দুর্ভোগের জন্য তাদের কোচ ম্যারাডোনার দায়ও কিন্তু কম নয়! অতি উচ্চতার জন্যই গত বছর লাপাজের ওপরে আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল ফিফা। তার প্রতিবাদে বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসের সঙ্গে একটা প্রীতি ম্যাচে অংশ নিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। পরে সেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে ফিফা।