ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

ভিক্ষাবৃত্তিহীন বাংলাদেশ স্বাধীনতার মূল উদ্দেশ্য

আমাদের মায়ের বয়সী খালা হঠাৎ  মধুর ক্যান্টিনের ঠিক পশ্ছিম পাশে হোঁচট খেয়ে পড়ে গেলেন। খালা পেটের দায়ে ভিক্ষা করেন। খালা  ভিক্ষা করতে করতে ক্লান্ত ছিলেন; তাই পড়ে গেলেন। এ দেখে আমার বন্ধু সুমন খালাকে ধরে উঠিয়ে দিলেন এবং হাতে ১০০ টাকা দিলেন এ দেখে মধুতে থাকা ছাত্রলীগের কয়েকজন ৫০, ১০০ টাকা করে দিলেন। ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করে নিজেকে অসহায়ত্ব অনুভব করি ।

যে দেশের মানুষ অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য  বার বার জীবন দিয়েছে, রক্ত দিয়েছে, সতিত্ব বিসর্জন দিয়েছে। সে দেশের অভাগা মানুষ এখনও ভিক্ষা করতে হচ্ছে । 

অসহায়, অভাগা আমিই আবার গর্বিত যে ভিক্ষুক খালার দুঃসময়টিতে ছাত্রলীগ কর্মীরাই পাশে দাঁড়িয়েছ। এভাবেই ছাত্রলীগ দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াবে এবং শেখ হাসিনার নেতৃ্ত্বে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করবে বাংলাদেশকে।

তাই বুক ফুলিয়ে বলি, মাথা উঁচু করে বলি আমরা ছাত্রলীগ , আমরাই পারি ভিক্ষুক খালাদের মুখে হাসি ফুঁটাতে ।