ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

হাওয়াই দ্বীপে এমটিভির উপহার প্রিসলির মুর্তি

Rate this item
(0 votes)

১৯৭৩ সালে হাওয়াই দ্বীপে এক কনসার্টে গান করেছিলেন কিংবদন্তীর পপ গায়ক এলভিস প্রিসলি। 'অ্যালোহা ফ্রম হাওয়াই' নামের ওই কনসার্টে তারুন্যের যে ছটা বিচ্ছুরিত হয়েছিল তার অবয়ব থেকে এখনো তা অটুট হাওয়াইবাসীদের মনে। সেটাই আরো স্থায়ী রুপ পেলো বৃহষ্পতিবার সেই কনসার্টস্থলেই এই গায়কের প্রমাণ সাইজের একটি মুর্তি স্থাপনের মাধ্যমে। তার চুলের স্টাইল, মাটিতে ঝুলে পরা প্যান্ট, কলার ওঠানো শার্ট, চেখে কালো চশমা আর ঠোঁটের কাছে ধরা মাইক্রোফোন নিয়ে ৩৪ বছর আগে গায়নরত প্রিসলিই যেন উঠে এসেছে এই মুর্তিতে।হাওয়াইর নিল ব্লেইসডেল সেন্টারের কাছে অনুষ্ঠিত ওই কনসার্টটি স্মরণেই এই মুর্তি স্থাপন করা

হয়েছে। ওটিই ছিল স্যাটেলাইটের মাধ্যমে প্রচারিত প্রথম কনসার্ট যা বিশ্বের ১০০ কোটি দর্শক উপভোগ করে।পপ কিং এর এই ব্রোঞ্জ মুর্তিটির উপহার দিয়েছে টিভি ল্যান্ড। এমটিভি নেটওয়ার্কের একটি বিভাগ টিভি ল্যান্ড প্রিসলির ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মুর্তিটি উপহার দেয় হাওয়াইবাসীকে। ১৯৭৭ সালের ১৬ আগস্ট গ্রেসল্যান্ডে মারা যান প্রিসলি।মুর্তির নির্মাতা জোনাথন ভনব্রানা বলেন, "এলভিস হাওয়াইকে এতো দিয়েছেন। ...এটা অসাধারণ কাজ হয়েছে। তার অনেক মুর্তি রয়েছে যেগুলি দেখতে একেবারেই তার মতো নয়।"মুর্তিটি উন্মোচনকালে প্রিসলির 'সি সি রাইডার' ও 'আমেরিকান ট্রিলজি' গান দুটি বাজানো হয় লাউডস্পিকারে।প্রিসলিকে সম্মাননা জানাতে হাওয়াইয়ের বিখ্যাত গায়কেরা সেখানে হাজির ছিলেন।প্রিসলি হাওয়াইতে তিনটি ছবি করেছিলেন। ছবিগুলো হলো 'ব্লু হাওয়াই', 'গার্লস! গার্লস! গার্লস!' ও 'প্যারাডাইস, হাওয়াইয়ান স্টাইল'। কনসার্টের জন্যও তিনি এই দ্বীপে তিনবার এসেছিলেন।
উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে আসা হনলুলুর এক প্রিসলি ভক্ত মুফি হানেমান বলেন, " প্রিসলি এই দেশের মানুষ ছিলেন না বটে, কিন্তু তাকে আমরা আমাদের করে নিয়েছিলাম। এখন আমরা বলতে পারি প্রিসলি আমাদেরই অংশ।"