ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

দ্বিতীয় বিয়েতে সুখী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি!

Rate this item
(0 votes)

বিয়ের পর সুখী দাম্পত্য জীবন সবাই চায়। কিন্তু চাওয়া-পাওয়ার হিসেব তো আর সবার জীবনে মেলে না। অনেকের জীবনেই প্রথম বিয়ের অভিজ্ঞতা সুখকর হয় না। যাঁরা দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন কিংবা দ্বিতীয়বার গাঁটছড়া বাঁধার পরিকল্পনা করছেন তাঁদের জন্য সুখবরই বটে। দ্বিতীয় বিয়েতে নাকি সুখী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সম্প্রতি ‘হাফিংটন পোস্টে’র এক প্রতিবেদনে এমন বিস্ময়কর তথ্যই তুলে ধরা হয়েছে।প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় বিয়েতে সুখী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকার পেছনে বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। প্রথম বিয়ের অভিজ্ঞতা এ ক্ষেত্রে বেশ সহায়ক ভূমিকা রাখে। নিঃসন্দেহে প্রথম বিয়ে থেকে আপনি

অনেক শিক্ষাই অর্জন করেন। দ্বিতীয়বার নতুন করে জীবন শুরুর পর ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আগের ভুলগুলো পুনরাবৃত্তি করা থেকে নিজেকে বিরত রাখেন আপনি। অতীতের ভুল শোধরানোর বড় ধরনের সুযোগও করে দেয় দ্বিতীয় বিয়ে।

দুজন মানুষ এক ছাদের নিচে বসবাস করলে তর্ক-বিতর্ক হবেই। কিন্তু পুরোনো অভিজ্ঞতার আলোকে আপনি নতুন সঙ্গীর সঙ্গে এমন তর্ক-বিতর্কে জড়ান না, যা দাম্পত্য জীবনে ফাটল তৈরি করতে পারে। সঙ্গীর মতামতের প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা দেখান আপনি। আপনার আচরণ ও কথা বলার ধরন থেকে আপনার সঙ্গী স্পষ্ট উপলব্ধি করতে পারেন যে তাঁর প্রতি আপনার যথেষ্ট শ্রদ্ধাবোধ এবং সম্মান রয়েছে। বিষয়টি সুখী দাম্পত্য জীবনকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে খুবই কার্যকর।

দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে আত্মিক যোগাযোগ দৃঢ় হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই বেশি থাকে। কারণ, প্রথম স্ত্রীকে হারিয়ে আপনি অনুধাবন করেন জীবনে সঙ্গীর প্রয়োজন কতটা বেশি। এ জন্য দ্বিতীয় স্ত্রীকে অনেক বেশি আপন করে নেন আপনি। সব সময় নির্ভরতার জন্য তাঁর পানে চেয়ে থাকেন আপনি।

দ্বিতীয় বিয়ের পর সময় ও অভিজ্ঞতার কারণে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ক্ষেত্রে আপনার জ্ঞানের পরিধি অনেকটাই বেড়ে যায়। আপনি খুব ভালো করেই বুঝতে পারেন আপনি আপনার জীবন থেকে কি চান। নতুন সঙ্গীর কাছে আপনার চাওয়া-পাওয়ার কথা অকপটে খুলে বলতে পারেন আপনি।


প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে সন্তান থাকলে দ্বিতীয় জীবন শুরুর পর কিছুটা অসুবিধার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আর সন্তান যদি আপনার কাছে থাকে সে ক্ষেত্রে পরিস্থিতিটা আরেকটু জটিল হতে পারে। তবে পরিকল্পনা করে সব দিক সামলাতে পারলে কোনো সমস্যাই আর সমস্যা থাকে না।