ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

গাড়িরও যত্ন নিন

Rate this item
(0 votes)

গাড়িতে উঠতেই চোখে পড়ল, দুই দিন আগে বাচ্চারা গাড়িতে চকলেট খেয়েছিল, সেই খোসা পড়ে আছে। মেজাজটা বিগড়ে গেল। গাড়ির চালককে ডেকে বেশ বকাঝকাও করলেন। কিন্তু গাড়ি তো আপনার। আপনি কি পারতেন না এর দেখভাল করতে। সব সময় চালকের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে নিজেও নিতে পারেন এর যত্ন। কারণ সঠিকভাবে গাড়ির যত্ন না নিলে গাড়ির বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এ ছাড়া গাড়ির ভেতরের অংশের যত্নের প্রতি সতর্ক হওয়া উচিত গাড়ির মালিকের ও চালক উভয়েরই। নাভানা লিমিটেডের (টয়োটা) জ্যেষ্ঠ নির্বাহী (লজিসটিকস) এস কে ইমাদুল হক বলেন, গাড়ি কেনার পর প্রতিটি গাড়ির সঙ্গে একটি ব্যবহারনির্দেশনার বই থাকে। সেই বইতে গাড়ির যত্ন

নেওয়ার নিয়ম দেওয়া থাকে। সে অনুযায়ী গাড়ির যত্ন নেওয়া যেতে পারে। সাধারণভাবে গাড়ির যত্নের জন্য যা করণীয়:
 ব্যবহারের পর গাড়ি মুছতে হবে। আর ব্যবহারের পর গাড়ি ঢেকে রাখা উচিত।
 সপ্তাহে অন্তত একবার গাড়িটিকে ধুয়ে ফেলতে হবে।
 গাড়ি না ধুয়ে বেশিদিন চালানোর পর ব্রেকের গোড়ায় বালু জমে যেতে পারে। নিয়মিত ব্রেকের অংশটি পরিষ্কার করা উচিত।
 ব্যবহারের আগে নিয়মিত গাড়ির ইঞ্জিন পরীক্ষা করে দেখা উচিত।
 চাকায় যথেষ্ট হাওয়া আছে কি না সেটাও যাচাই করে দেখা উচিত।
 অনেকের ঘামের কারণে পায়ে দুর্গন্ধ হয়। তাই গাড়ির ভেতরে বিভিন্ন ধরনের সুগন্ধি দ্রব্য রাখা উচিত।
 নতুন গাড়ির বসার সিটগুলোতে প্লাস্টিক লাগানো থাকে। যতটুকু সম্ভব খেয়াল করতে হবে যেন প্লাস্টিকটি ছিঁড়ে না যায়।
 প্লাস্টিক ছিঁড়ে গেলে সম্ভব হলে প্রতিদিন বসার জায়গাগুলো পরিষ্কার করতে হবে। তা না হলে বসার জায়গা নোংরা হয়ে যেতে পারে।
 গাড়ির ডিকির ভেতরটাও ভালোভাবে পরিষ্কার করে রাখা উচিত।
 গাড়ির ভেতরের পাপোশ অথবা ম্যাটটাও ভালোভাবে পরিষ্কার রাখা উচিত। তা না হলে গাড়ির ভেতর দুর্গন্ধ হতে পারে।
 গাড়ি কত দূরত্ব চলেছে, তার ওপর মবিল পরিবর্তন অনেকটা নির্ভর করে। গাড়ি যদি প্রতিদিন চালানো হয় তাহলে দেড় থেকে দুই মাস পরপর মবিল পরিবর্তন করা উচিত।
 দিনে অন্তত একবার গাড়ির কাচ মোছা দরকার।