ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

‘‌‌‌বিএসএমএমইউ হবে আন্তর্জাতিক মানের’

Rate this item
(0 votes)

বঙ্গবন্ধু শেখ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল ও আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করা হবে হবে জানিয়ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত।

বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

উপাচার্য  বলেন, বর্তমানে ১৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটিতে বহির্বিভাগে প্রতিদিন গড়ে তিন সহস্রাধিক রোগীকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালের চিকিৎসাসেবার গুণগত মান বৃদ্ধি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালকে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে পরিণত করার লক্ষ্যে দৃশ্যমান কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, ইতিমধ্যে বৈকালিক স্পেশালাইড আউটডোর সার্ভিস চালু করা হয়েছে। কোরিয়ান সরকারের সহায়তায় একটি সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল নির্মাণের কার্যক্রম নেয়া হয়েছে। সাধারণ রোগীদের স্বার্থে জেনারেল জরুরি বিভাগও খোলা হবে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিকমানের পর্যায়ে নিতে গবেষণা কার্যক্রম অধিকতর ফলপ্রসূ করার লক্ষ্যে পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইনফরমেটিকস বিভাগ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ভার্চুয়াল ক্লাসরুম চালু করা হয়েছে। সম্প্রতি গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগে একজন প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

রোগীদের সেবার পরিধি বৃদ্ধির লক্ষ্যে গৃহীত পদক্ষেপগুলো তুলে অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, ইতিমধ্যে হাসপাতালের শয্যা ও কেবিন সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। আইসিউ সংবলিত অত্যাধুনিক সিসিইউ, এনআইসিউ চালু করা হয়েছে। একটি আধুনিক আইসিউ কমপ্লেক্স ও অপারেশন থিয়েটার কমপ্লেক্স নির্মাণের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে গ্রাজুয়েট নার্সিং বিভাগ, রিউমাটোলজি মেডিসিন বিভাগ, এন্ডোক্রাইনোলজি মেডিসিন বিভাগ, সেন্টার ফর প্যালিয়াটিভ কেয়ার, সেন্টার ফর নিউরোডেভেলপমেন্ট অটিজম ইন চিলড্রেন চালু করা হয়েছ। জরায়ু ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা, নবজাতকদের চিকিৎসাসেবা, তোঁতলামি ও বধিরদের চিকিৎসাসেবায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রকল্পও চালু রয়েছে।

অনুষ্ঠানে  আরও উপস্থিত ছিলেন প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. মো. রহুল আমিন মিয়া, প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোঃ জুলফিকার রহমান খান, বেসিক চিকিৎসা অনুষদের ডীন ও বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, সোস্যাল অ্যান্ড প্রিভেনটিভ মেডিসিন অনুষদের ডিন ও কমিউনিটি অফথালমোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সভাপতি ও বিএসএমএমইউর নাক-কান ও গলা বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবু সফি আহমেদ আমিন, নার্সিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. শাহানা আখতার রহমান, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মো. সায়েদুর রহমান, পরিচালক (হাসপাতাল) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) আব্দুল মজিদ ভূঁইয়া, পরিচালক (মানব সম্পদ উন্নয়ন) ডা. জামাল উদ্দিন খলিফা, অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মো. আসাদুল ইসলাম, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, শিক্ষক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স ও কর্মচারীরা ।