ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Thursday, 27 February 2014 21:21

সংলাপ শুরু করতে ভারতকে নতুন প্রস্তাব পাকিস্তানের

Rate this item
(0 votes)

দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে ভারতের সঙ্গে নতুন করে আলোচনা শুরু করতে নয়াদিল্লিকে একটি রূপরেখার প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান। গত শুক্রবার কয়েকটি গণমাধ্যমে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।
পাকিস্তানের দৈনিক দি এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এক প্রতিবেদনে জানায়, ভারতের সঙ্গে আলোচনা শুরুর বিষয়ে একটি রূপরেখা গত বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লির কাছে পাঠানো হয়েছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পররাষ্ট্রবিষয়ক বিশেষ সহকারী তারিক ফাতেমি একটি চিঠিসহ

ওই রূপরেখা ভারতের এক কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন-এর ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, রূপরেখায় শান্তি প্রক্রিয়া পুনরুজ্জীবিত করার কথা উল্লেখ করে বেশ কিছু প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আর চিঠির মাধ্যমে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ।
নওয়াজের ছোট ভাই ও পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সঙ্গে চলতি সপ্তাহে দিল্লি ও ভারতের পাঞ্জাব রাজ্য সফর করেন তারিক ফাতেমি। এই ফাতেমিই গত বৃহস্পতিবার ভারতের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে রূপরেখা হস্তান্তর করেন।
পাকিস্তানের প্রস্তাবিত রূপরেখায় দুই দেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা (এনএসএ) পর্যায়ের বৈঠক আয়োজনের কথা বলা হয়েছে। উপদেষ্টা পর্যায়ের বৈঠকের মাধ্যমে দুই পক্ষের মতানৈক্য দূর করে একটি সংহত সংলাপ আয়োজন সম্ভব হবে বলে মনে করে পাকিস্তান।
গত বুধবার ইসলামাবাদে ভারতের এক দূতের সঙ্গে বৈঠকের সময় নওয়াজ শরিফ বলেন, উপদেষ্টা পর্যায়ের বৈঠকের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কার্যপ্রণালি থাকা উচিত। এই বৈঠকে সন্ত্রাসবাদ ও দুই পক্ষের উদ্বেগের জায়গাগুলো নিয়ে আলোচনা হতে পারে।
রূপরেখার মাধ্যমে নয়াদিল্লির কাছে পাঠানো চিঠিতে নওয়াজ বলেন, প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে বিরোধ মিটিয়ে ফেলার বিষয়ে তিনি ‘অনেক দূর’ এগিয়ে যেতে চান।
এক্সপ্রেস ট্রিবিউন-এর ওই প্রতিবেদনে নাম উল্লেখ না করে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বলা হয়, প্রতিবেশী এই দুই দেশের মধ্যে বিরাজমান সমস্যাগুলো তখনই সমাধান সম্ভব, যখন উভয় পক্ষ রাজনৈতিক সদিচ্ছা দেখাবে।
পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণসংক্রান্ত নওয়াজের চিঠি গত বৃহস্পতিবার মনমোহনের কাছে পৌঁছানো হয়। তিনি সেটা গ্রহণও করেছেন। কয়েক বছর ধরেই পাকিস্তানের নেতারা ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে ইসলামাবাদ সফরের আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন। তবে মনমোহন বারবার বলেছেন, তাঁর পাকিস্তান সফরের বিষয়টি নির্ভর করছে লাইন অব কন্ট্রোল (এলওসি) ও সন্ত্রাসবাদ পরিস্থিতির ওপর।
নয়াদিল্লি থেকে পাকিস্তান হাইকমিশনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, মনমোহনের কাছে চিঠি ও আলোচনার রূপরেখা পাঠিয়ে নওয়াজ আলোচনার প্রতি তাঁর সদিচ্ছার বার্তা দিয়েছেন। নওয়াজ এই দুই দেশসহ আঞ্চলিক শান্তি, সমৃদ্ধি ও স্থিতিশীলতার জন্য ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লির মধ্যে বন্ধুত্ব ও সহযোগিতাপূর্ণ সম্পর্ক চান।
দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী দুই দেশ পাকিস্তান ও ভারত ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে। এর পর থেকে কাশ্মীরসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বৈরী অবস্থানে দেশ দুটি। শুধু কাশ্মীর ইস্যুতেই এ পর্যন্ত দুটি যুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে পারমাণবিক শক্তিধর ভারত ও পাকিস্তান।

Last modified on Monday, 10 March 2014 00:41