ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Friday, 28 February 2014 17:55

লাতিন আমেরিকায় রেকর্ড বিদেশি বিনিয়োগ

Rate this item
(0 votes)

মন্দায়ও গত বছর রেকর্ড বৈদেশিক বিনিয়োগ আসে লাতিন আমেরিকায়। এ অঞ্চলে বিদেশি বিনিয়োগ ২৭ শতাংশ বেড়ে হয় রেকর্ড ১৫৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে বিকাশমান ব্রাজিল। গত বছর দেশটিতে সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ (এফডিআই) ৩৭.৪ শতাংশ বেড়ে হয় ৬৭ বিলিয়ন ডলার। ইকোনমিক কমিশন ফর লাতিন আমেরিকা অ্যান্ড দ্য ক্যারিবিয়ান (একল্যাক) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ দাবি করা হয়।
এতে বলা হয়, বৈদেশিক বিনিয়োগের দিক থেকে ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে পিছিয়ে চিলি ও ম্যাক্সিকো। তবে আরেক দেশ কলম্বিয়ায় এফডিআই ৯২ শতাংশ বেড়ে হয় ১৩ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, এ অঞ্চলের টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বিনিয়োগকারীদের টেনে আনছে। তাঁরা ছুটে আসছেন এখানকার বিকাশমান বাজার ধরতে। একল্যাকের নির্বাহী সচিব অ্যালিসিয়া বারসেনা বলেন, বৈশ্বিক অর্থবাজারে চলমান অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও ২০১১ সালে লাতিন আমেরিকা এবং ক্যারিবীয় অর্থনৈতিক দেশগুলো বিপুল বৈদেশিক বিনিয়োগ আকর্ষণে সক্ষম হয়েছে। ২০১২ সালেও এ প্রবণতা ঊর্ধ্বমুখী থাকবে বলে তিনি জানান।
প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে কাঁচামালের উচ্চমূল্য থাকার কারণেই খনিজ উৎপাদনে বিনিয়োগ বাড়ছে। এতে আরো বলা হয়, উন্নত দেশগুলোর ঋণসংকট কেন্দ্রিক বৈশ্বিক বাণিজ্যিক পরিবর্তনেও এ অঞ্চল উপকৃত হচ্ছে। তবে প্রতিবেদনে বলা হয়, এ অঞ্চলে বিনিয়োগ বাড়ছে নিম্ন প্রযুক্তিতে। বিশেষ করে মাইনিং (খনি) এবং খাদ্য উৎপাদন। যদিও অর্থনীতিবিদদের পরামর্শ হচ্ছে, এ অঞ্চলটিকে উচ্চ প্রযুক্তির শিল্পোৎপাদনে যেতে হবে। গত বছর বিনিয়োগের ৬১ শতাংশ ছিল লো-টেক বা নিম্ন প্রযুক্তি খাতে। এ তুলনায় গত বছর এশিয়ায় বিনিয়োগের ৮০ শতাংশই এসেছিল মধ্যম থেকে উচ্চ প্রযুক্তি খাতে। এ অঞ্চলে বিনিয়োগ এভাবে বেড়ে যাওয়ায় কিছু দেশের সরকারের জন্য মূল্যস্ফীতি ও মুদ্রাবাজার নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যে ব্রাজিল নিজস্ব মুদ্রা রিয়াল শক্তিশালী হওয়ার কথা জানিয়েছে।