ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

ফুটবল ভক্তদের জন্য ইংরেজি শিখছেন পতিতারা

Rate this item
(0 votes)

ইগর ফুখস। ইংরেজির শিক্ষক।  ব্রাজিলের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের বেলো হরিজন্তে শহরে মেয়েদের ইংরেজি শেখান তিনি। অবশ্য ফুখস-এর শিক্ষার্থীরা সকলেই পতিতা। তাঁরা ইংরেজি শিখছেন বিদেশি খদ্দেরদের সন্তুষ্ট করতে। সাধারণ কথোপকথনের বাইরে যৌনতার সঙ্গে সম্পর্কিত বিশেষ ইংরেজি শব্দগুলো শিখতে আগ্রহী এই মেয়েরা। শিক্ষকও সেভাবেই তাদেরকে ইংরেজি পড়ান।   ব্রাজিলে পতিতাদের মধ্যে ইংরেজি শেখার হিড়িক পড়ার কারণ আসন্ন কনফেডারেশন কাপ এবং বিশ্বকাপ। আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হবে কনফেডারেশন কাপ। বেলো হরিজন্তে শহরে রয়েছে তিনটি ম্যাচ।

ধারণা করা হচ্ছে, জুন মাসে এসব খেলা দেখতে শহরে থাকবেন ৪০ হাজারের মতো বিদেশি পর্যটক। তাদের আগমনের সঙ্গে যৌন ব্যবসাও জমে উঠবে। তবে শহরের সব পতিতা যে ইংরেজি শেখায় আগ্রহী, তেমনও নয়। অনেকের মধ্যেই ক্লাস ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা প্রকট। আর যাঁদের বয়স একটু বেশি তাঁরা আবার ক্লাসে আসেন নিয়মিত। এঁদেরই একজন মারিয়া আপারেসিডা। ৫৫ বছর বয়সি এই নারী জানালেন, ‘‘আমি সবসময়ই ইংরেজি শিখতে চেয়েছি। পতিতা পেশায় থেকে আমি সন্তানদের বড় করেছি।'' বেলো হরিজন্তের পতিতাদের অ্যাসোসিয়েশন গত মার্চ মাসে এই ইংরেজি ভাষা শিক্ষার কার্যক্রম শুরু করেছে। এখন পর্যন্ত ৩০০ জন পতিতা ইংরেজি ক্লাসে নাম লিখিয়েছেন। পতিতাদের অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান সিডা ভিয়েরা বলেন, ‘‘পর্যটকরা দল বেধে এখানে আসেন এবং তাঁরা পয়সা খরচ করতে চান।'' ভিয়েরার বয়স ২৬ বছর। প্রতিদিন গড়ে ২০ জন খদ্দেরের দেখা পান তিনি এবং ১৫ মিনিটের একেকটি সেশনের জন্য ১০ থেকে ২৫ মার্কিন ডলার নেন। ইংরেজি শেখার গুরুত্ব সম্পর্কে ভিয়েরা বলেন, ‘‘আমারা রাস্তাঘাটে, ডিস্কোতে নিয়মিত বিদেশিদের মুখোমুখি হই৷ অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে আমরা চাই যে মেয়েরা আরো প্রশিক্ষণ নিক, যাতে তারা বিদেশিদের ভালো সেবা দিতে পারে।'' উল্লেখ্য, ব্রাজিলে আগামী বছর বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। সে সময় বেলো হরিজন্তেতে হাজির হবেন দেড় লাখের মতো পর্যটক। এরপর আবার ২০১৬ সালে অলিম্পিক আয়োজন করা হবে সেদেশে। ফলে বিদেশি খদ্দেরদের মন জয় করতে ইংরেজি শেখাকেই এখন বড় কাজ মনে করছেন ব্রাজিলের পতিতারা। আর সে লক্ষ্যেই চলছে কাজ।