ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Friday, 28 February 2014 19:21

হারিয়ে যাবে নাইটিংগেলস!

Rate this item
(0 votes)

বিশ্বখ্যাত কবি জন কিটসের অমর কবিতা 'দ্য নাইটিংগেলস'। রোমান্টিক কবি কিটস গানের এই পাখি নিয়ে কাব্য রচনা করে পৃথিবীর মানুষকে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন নাইটিংগেলসের সঙ্গে। বিশেষ করে ওই পাখির সুরললিত আবেশ মানুষকে প্রজন্মের পর প্রজন্ম আবিষ্ট করে রেখেছে। কিন্তু পরিবেশ বিজ্ঞানীরা ওই পাখির অস্তিত্ব থাকবে কি না এ নিয়ে এখন শঙ্কিত। তাঁরা বলছেন, গানের পাখি নাইটিংগেলস ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। হয়তো আগামী ৩০ বছরের মধ্যে এই পাখি আর পাওয়া যাবে না। তাঁরা এক গবেষণায় দেখেছেন, গত ৪০ বছরে এই পাখি ৯০ ভাগ হারিয়ে গেছে।


ব্রিটিশ ট্রাস্ট ফর অরনিথোলজির একদল গবেষক নাইটিংগেলস বিলুপ্তির কারণ শনাক্ত করে বলছেন, এই পাখি বিশেষ একধরনের গাছের পাতা ও ছাল খেয়ে জীবনধারণ করে। কিন্তু বছরের পর বছর মানজ্যাক নামের একধরনের ছোট হরিণ
ওই গাছ খেয়ে ফেলছে। ফলে আবাস ও খাদ্যের সংকটে নাইটিংগেলস বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।
বিজ্ঞানীরা আরো জানান, ১৯২৫ সালে বেডফোর্ডশায়ারের ডিইকে শ্রীলঙ্কা, ভারত, চীন, জাপানসহ এশিয়া মহাদেশ থেকে মানজ্যাক হরিণের আমদানি করে। এরপর থেকে মানজ্যাকের খাবার হয়ে ওঠে নাইটিংগেলসের আবাসস্থল ওই গাছ। তাই খাদ্য ও আবাসের অভাবে ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে গানের পাখি নাইটিংগেলস। তবে এই পাখিকে সংরক্ষণ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা অত্যন্ত জরুরি। প্রয়োজনে ব্যাপারটির জন্য সর্বোচ্চ রেড অ্যালার্ট জারি করা উচিত বলে মনে করেন পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।