ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

বাস্তবেও আমি অগ্নিকন্যা: মাহি

Rate this item
(0 votes)

ঢালিউডে একের পর এক ব্যবসাসফল ছবি উপহার দিয়ে চলেছেন মাহিয়া মাহি। ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পেয়েছে তাঁর অভিনীত ‘অগ্নি’ ছবিটি। এই ছবির মাধ্যমে অ্যাকশন নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন মাহি। মুক্তির পরপরই দারুণ সাড়া ফেলেছে ‘অগ্নি’। ছবিটিসহ আরও নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী। 

 ‘অগ্নি’ ছবির সাফল্যের পর...
আমি আসলে এতটা

সাফল্য আশা করিনি। ছবির কাজটা শুরুর আগে খুব ভয়ে ছিলাম। কাজটা আমাকে দিয়ে আদৌ হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় ছিল আমার মধ্যে। অ্যাকশনধর্মী ছবিতে এমন সাফল্য আমার কল্পনার বাইরে ছিল। কারণ কাজ শুরু করার আগে আমার কোনো রকম পূর্ব প্রস্তুতি ছিল না। কাজের মধ্যেই আমাকে ফাইট শিখতে হয়েছে।
অগ্নিকন্যা মাহিয়া মাহি...
বাস্তব জীবনেও আমি অগ্নিকন্যা। খুবই ঝগড়াটে স্বভাবের মেয়ে আমি। বলতে পারেন ঝগড়া করাটা আমার একধরনের শখ।
পছন্দের চরিত্র...
অ্যাকশন ও রোমান্টিক দুই ধরনের চরিত্রই আমার পছন্দের। ‘পোড়া মন’ ছবি দেখে সবাই আমাকে ‘পরি’ ডেকেছে। আর এখন ডাকছে ‘অগ্নিকন্যা’। আমার ভালো লাগছে এই ভেবে যে, আমি হয়তো সব ধরনের চরিত্রেই ডুবে যেতে পারি।

‘অগ্নি’র শুটিংয়ে না ভোলার মতো স্মৃতি...

অনেক আছে। একটি দৃশ্যে আমাকে আট তলার ওপর থেকে লাফ দিতে হয়েছে। সবাই ভয় পেয়েছিল। কিন্তু আমি অনেক স্বাভাবিক ছিলাম। এমনকি মুখে হাসি হাসি ভাবটাও ধরে রেখেছিলাম। আমি সাঁতার জানি না। একটি সাঁতারের দৃশ্যের জন্য পাঁচ মিনিটের মধ্যে আমাকে সাঁতার শেখানো হয়। তারপর সমুদ্রের একেবারে গভীরে আমি আর শুভ ভাই সাঁতারের দৃশ্যটা করি।

বর্তমান কাজ...

এখন ‘দেশা দ্য লিডার’ ছবির কাজ করছি। এখানে আমার সঙ্গে নবাগত শিপন ভাই অভিনয় করছেন। এ ছাড়া চলতি মাসের ২৬ তারিখ থেকে ‘হানিমুন’ ছবির কাজ শুরু করব। ছবিটিতে বাপ্পী ভাইয়ার সঙ্গে আমি অভিনয় করব।

সুপারস্টার মাহি...

আমি যে চলচ্চিত্রের নায়িকা, এটা আমার মনেই হয় না। শুধু ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালে সেটা ফিল করি। এখন আম্মু বাইরে একা বের হতে দেয় না। আর বের হলেও সবাই যখন অবাক হয়ে আমার দিকে তাকায়, তখন মনে হয় আমি সুপারস্টার মাহি।

যা খুব মিস করেন...

আমি আসলে আমার স্কুল আর কলেজ জীবনকে অনেক মিস করি। তখন অনেক চিঠি পেতাম, অনেকেই প্রেমের অফার দিত। কিন্তু এখন আর কেউ দেয় না। পার্কে প্রেমিক-প্রেমিকাদের দেখলে আমার খুবই আফসোস লাগে।

মাহির পড়াশোনা...

একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্যাশন ডিজাইনিং পড়ছি। ভবিষ্যতে নিজের পোশাক মনের মতো করে wডজাইন করতে চাই। এটা আমার স্বপ্ন বলতে পারেন।

ভবিষ্যত্ পরিকল্পনা...

আমি আসলে পরিকল্পনা করে কিছু করতে পারি না। যেটা দিনে করব ভাবি, সেটা রাতে হয়। মানে সব সময় বিপরীতটা হয়। ভবিষ্যতে নিজেকে সাফল্যের চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যেতে চাই আমি। সবাই যেন মনে রাখে, মাহি নামে একজন সুপারস্টার ছিল। আর তখন আমার অনুভূতি কেমন হবে, সেটাও খুব জানতে ইচ্ছে করে।

 

 

 

Last modified on Monday, 10 March 2014 02:27