ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Wednesday, 05 March 2014 16:54

সব নারীই মাধুরীর অনুপ্রেরণা

Rate this item
(0 votes)

মাধুরী তার জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে চারপাশের নারীদের দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন। মাধুরী অভিনীত নারীকেন্দ্রিক চলচ্চিত্র ‘গুলাব গ্যাং’-এর প্রচারণার জন্য আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মাধুরী। সিনেমাটিতে তার অভিনীত চরিত্রের নাম রাজ্জো।

মাধুরী বলেন, “বিশ্বের প্রতিটি নারীই আমার জীবনের অনুপ্রেরণা। রাজ্জো সমাজের নারীদের একজন প্রতিনিধি। এমন অনেক নারী আছেন যারা তাদের জীবনে অনেক মূল্যবান কাজ করেছেন। আর ‘গুলাব গ্যাং’ সিনেমাটি তাদের জন্যই নির্মিত হয়েছে।”

ভারতের উত্তর প্রদেশের বুন্দেলখণ্ডের নারী সংঘ ‘গুলাবি গ্যাং’-কে নিয়ে সৌমিক সেনের পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে ‘গুলাব গ্যাং’। ‘গুলাবি গ্যাং’ সংঘটির পরিচালনা করেন সম্পত পাল।

অনুভব সিনহা প্রযোজিত ‘গুলাব গ্যাং’ সিনেমাতে ভারতীয় নারীদের জীবনের কাহিনি তুলে ধরা হবে। সিনেমাটিতে নেতিবাচক চরিত্রে প্রথমবারের মতো অভিনয় করেছেন জুহি চাওলা। বলিউডের বেশির ভাগ সিনেমা যেখানে অভিনেতাকেন্দ্রিক, সেখানে ‘গুলাব গ্যাং’-এর দুটি কেন্দ্রীয় চরিত্রই নারীকেন্দ্রিক এবং প্রধান কোনো পুরুষ চরিত্র নেই এতে। আর তাই সিনেমাটি নিয়ে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।

বলিউডের দুই আলোচিত অভিনেত্রী মাধুরী এবং জুহি এই প্রথমবার একই সঙ্গে অভিনয় করছেন একটি সিনেমায়। সিনেমাটি নারী দিবস উপলক্ষে ৭ মার্চ মুক্তি পাবে।

১৯৮৪ সালে ‘অবোধ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে অভিনেত্রী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন মাধুরী।

ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিসকে মাধুরী জানান তার পরিবার বরাবই সিনেমা থেকে দূরে থাকত। মাধুরী বলেন, “আমার কখনও টিনসেলে সফল হওয়ার জন্য কষ্ট করতে হয়নি। কারণ সিনেমা বা অভিনয় আমার লক্ষ্য ছিল না। ‘অবোধ’ সিনেমার পরিচালক নিজে আমার বাসায় এসে অভিনয় করার প্রস্তাব দেন। আর এরপর পরিবার থেকে আমাকে একটি সিনেমায় অভিনয়ের অনুমতি দেওয়া হয়।”

তবে এরপর ‘রাম লক্ষণ’, ‘দিল’ ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’, ‘দিল তো পাগল হ্যায়’সহ অসংখ্য ব্যবসা সফল সিনেমা উপহার দেন মাধুরী। তিনি বলিউডের অন্যতম সেরা তারকায় পরিণত হন। বিয়ের পর সংসার নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়া মাধুরী দীর্ঘ বিরতির পর ‘দেড় ইশকিয়া’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ফিরে আসেন বলিউডে। সিনেমাটি সমালোচকদের প্রশংসা পেয়েছে।

আর মুক্তির প্রতীক্ষায় রয়েছে তার ‘গুলাব গ্যাং’।