ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

খুচরা বিনিয়োগকারীদের বিক্রির চাপে শেয়ার বাজারে দরপতন

Rate this item
(0 votes)

ঢাকা, জানুয়ারি ৬ খুচরা বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বিক্রির প্রবণতায় রোববার বেশিরভাগ খাতের শেয়ারের দাম কমেছে।

পুঁজি বাজার বিশ্লেষক ও এইমস বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী ইয়াওয়ের সাইদ বলেন, "মেঘনা ও যমুনার শেয়ার কেনার খুচরা বিনিয়োগকারীরা হাতে টাকা রাখতে চাচ্ছেন। এ কারণে তাদের শেয়ার বিক্রির প্রবণতা বেড়েছে, বাজারও খানিকটা পড়ে গেছে।"

দিনের শুরুতে বাজারের সাধারণ মূল্য সূচক সামান্য উঠলেও অল্প সময়ের মধ্যে তা আবার নামতে শুরু করে। দিনের মাঝামাঝি সময়ে বাজার কিছুটা সামলে

উঠছে বলে মনে হলেও সূচকের পতনের মধ্য দিয়েই দিন শেষ করেছে পুঁজি বাজার।

দিনশেষে ডিজিইএন বা সাধারণ শেয়ার সূচক ৫০ দশমিক ১৬ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৬৮ শতাংশ কমে ২৯২৯ দশমিক ৩২ পয়েন্ট হয়। ডিএসআই বা সার্বিক শেয়ার সূচক ৪০ দশমিক ০২ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৫৯ শতাংশ কমে হয়েছে ২৪৬৮ দশমিক ১০ পয়েন্ট। এছাড়া ডিএসই-২০ ব্লুচিপ শেয়ার সূচক ৪৪ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৮২ শতাংশ কমে ২৪০০ দশমিক ৬৮ পয়েন্ট হয়েছে।

দিনশেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ১১০ কোটি টাকার ৫৪ লাখ ৬২ হাজার ২৯৬টি শেয়ার লেনদেন হয়। এ বাজারে ৪০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৭৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দাম।

লেনদেনের তালিকার শীর্ষে থাকা আইএফআইসি ব্যাংকের শেয়ারের দাম ২ দশমিক ৮০ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ২৬২০ টাকা ২৫ পয়সা। সরকারি মালিকানায় থাকা ব্যাংকটির শেয়ার বাজারে ছাড়ার ঘোষনায় তাদের শেয়ারের দাম এদিন বেড়েছে।

লেনদেনের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা এবি ব্যাংকের শেয়ারের দাম দশমিক ১০ শতাংশ কমে ২৬৭৩ টাকা ২৫ পয়সা হয়েছে। ইউসিবিএল এর শেয়ারের দামও কমেছে। এক দশমিক ২১ শতাংশ কমে হয়েছে ৪১৩৮ টাকা ৫০ পয়সা। এছাড়া প্রাইম ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক ও ব্র্যাক ব্যাংকের শেয়ারের দামও কমেছে।

বিদ্যুৎ খাতে সামিট পাওয়ারের শেয়ারের দাম ২ দশমিক ৫৩ শতাংশ বেড়ে ১৪৫৬ টাকা ২৫ পয়সা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, রাইট শেয়ার ঘোষণার বিষয়ে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছে তারা। তবে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে।

ওষুধ খাতে স্কয়ার ফার্মার শেয়ার ২ দশমিক ২২ শতাংশ কমে ৩৪৯৯ টাকা ২৫ পয়সা হয়েছে। তবে গ্রামীণ১ মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারের দাম বেড়েছে।

ডিএসইতে লাভবান প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে প্রথমদিকে ছিল ফাইন ফুডস লিমিটেড, লিবরা ইনফিউশন লিমিটেড, বাংলাদেশ থাই অ্যালুমিনিয়াম, রাসপিট ইনকরপোরেশন, ও এম হোসেন গার্মেন্টস। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় শীর্ষে ছিল ওয়াটা কেমিকেলস, ইস্টার্ন ইন্সুরেন্স, জনতা ইন্সুরেন্স, পিপলস ইন্সুরেন্স ও বিডিকম অনলাইন লিমিটেড।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সব শেয়ার সূচক রোববার নিম্নমুখী ছিল। এ বাজারে ১৬ কোটি ১৫ লাখ ২৬ হাজার টাকার ১১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪টি শেয়ার লেনদেন হয়। সিএসইতে ১৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, ৯১টির কমেছে এবং ৫টির দাম অপরিবর্তিত ছিল।

এদিন সিএএসপিআই বা সার্বিক শেয়ার সূচক ১২১ দশমিক ৪৯ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৬০ শতাংশ কমে ৭৪৪৫ দশমিক ৮৮ পয়েন্ট হয়। সিএসসিক্স বা নির্দিষ্ট শ্রেণীর শেয়ার সূচক ৮২ দশমিক ৬৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৭০ শতাংশ কমে হয়েছে ৪৭৭৩ দশমিক ৭৮ পয়েন্ট। এছাড়া সিএসই-৩০ ব্লুচিপ শেয়ার সূচক ১১৮ দশমিক ৮৯ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৭৩ শতাংশ কমে ৬৭৩৭ দশমিক ৩৫ পয়েন্ট হয়েছে।

Last modified on Saturday, 08 March 2014 10:02