ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Thursday, 06 March 2014 16:03

ক্রেতাদের হয়ে কারখানা পরিদর্শন করবে দেশীয় ৭ প্রতিষ্ঠান

Rate this item
(0 votes)

উত্তর আমেরিকার ক্রেতাদের সংগঠন নর্থ আমেরিকান অ্যালায়েন্স আওতায় এখন থেকে সাতটি বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গার্মেন্টস কারখানার ভবন, অগ্নি ও বৈদ্যুতিক ব্যবস্থাপনার মান পরীক্ষা করা হবে। এর ফলে কারখানা মালিকদের হয়রানি বন্ধ হবে বলে মনে করছে বিজিএমইএ।



বৃহস্পতিবার বিকেলে অ্যালায়েন্স ও কারখানা মালিকদের মধ্যে মতবিনিময় সভা শেষে বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

জানা যায়, বাংলাদেশি এ সাতটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে- উত্তরণ, এমকে, বিভি, বিডি টেকনোলজি, ইআইএমএস, শহীদুল্লাহ অ্যাসোসিয়েট ও অন্য একটি প্রতিষ্ঠান।
 
বিজিএমইএ সভাপতি জানান, ক্রেতাদের চাপে যেসব কারখানা পরিদর্শনের আগেই ফায়ারডোর লাগিয়েছে তাদের আর নতুন করে এটা লাগাতে হবে না। এখানে খুব বেশি সমস্যা না থাকলে সে কোম্পানিকে আর পরিদর্শনের আওতায় আনা হবে না। অ্যালায়েন্সের পরিদর্শনের পর যে সার্টিফিকেট দেয়া হয় তাদের তা দিয়ে দেয়া হবে।

তিনি আরো জানান, অগ্নি ও বৈদ্যুতিক নিরাপত্তা সরঞ্জামাদি বিদেশ থেকে আমদানির ব্যপারে সরকারের সাথে কথা চলছে। খুব দ্রুত এসব সরঞ্জামাদি শুল্কমুক্তভাবে কারখানা মালিকরা আমদানি করতে পারবে।

উল্লেখ্য, প্রথম ধাপে ইউরোপীয় ক্রেতাদের সংগঠন অ্যাকোর্ড ও উত্তর আমেরিকার ক্রেতা সংগঠন অ্যালায়েন্স ২২২টি গার্মেন্টস কারখানা পরিদর্শন করেছে। এগুলোর একটিও মারাত্মক ঝুঁকিতে নেই বলে জানিয়েছে তারা। দ্বিতীয় ধাপে অ্যাকোর্ড কারখানা পরিদর্শন শুরু করেছে ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে। আর অ্যালায়েন্স শুরু করেছে ২০ জানুয়ারি থেকে। অ্যাকোর্ড পরিদর্শন করবে ১৮০০ কারখানা এবং অ্যালায়েন্স করবে ৮০০ কারখানা।

এর আগে ক্রেতা সংগঠনগুলো নিজেদের এবং বাংলাদেশ থেকে কয়েকজন প্রতিনিধি নিয়ে কারখানা পরিদর্শন করতো। এর ফলে একই কারখানা একাধিকবার পরিদর্শনের কারণে কারখানা মালিকরা হয়রানির শিকার হন বলে অভিযোগ রয়েছে।