ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি বেশ কমে গেছে

Rate this item
(0 votes)

খাদ্যপণ্য, শিল্পের কাঁচামালসহ প্রায় সব ধরনের পণ্যের আমদানি বাড়লেও দেশে শিল্প বিকাশের জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজনীয় মূলধনী যন্ত্রপাতি (ক্যাপিটাল মেশিনারি) আমদানি বেশ কমে গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী বিদায়ী ২০০৭-০৮ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে (জুলাই-মে) মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি আগের অর্থবছরের একই সময়ে চেয়ে ১০ দশমিক ৩৭ শতাংশ কমেছে। অথচ ২০০৬-০৭ অর্থ বছরে জুলাই-মে সময়ে আগের অর্থবছরের (২০০৫-০৬) একই সময়ের চেয়ে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি বেড়েছিল প্রায় ১৭ শতাংশ।

মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি কমে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে ব্যবসায়ী নেতারা বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের এ তথ্যই প্রমাণ করে যে দেশে বিনিয়োগ কমে গেছে।

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ও প্রধান উপদেষ্টার নেতৃত্বে গঠিত বাংলাদেশ বেটার বিজনেস ফোরামের (বিবিবিএফ) সদস্য আনোয়ার-উল-আলম চৌধুরী পারভেজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "ব্যবসায়ী শিল্পপতিদের মধ্যে এখনও আস্থা পুরোপুরি ফিরে আসেনি। তারা ভেবেচিন্তে বিনিয়োগ করছে। আর এ কারণেই মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি কমছে।"

তিনি বলেন, "নতুন শিল্প স্থাপনের জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হচ্ছে মূলধনী যন্ত্রপাতি। আর এই মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি কমে যাওয়া উন্নয়নশীল যে কোনো দেশের অর্থনীতির জন্যই নেতিবাচক ফল বয়ে আনে। আমাদের মতো দেশের শিল্প বিকাশের জন্য মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির ক্ষেত্রে কমপক্ষে ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হওয়া প্রয়োজন।

মূলধানী যন্ত্রপাতি আমদানির ক্ষেত্রে এ নেতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী দুই বছর পর ৬ শতাংশের উপরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি (মোট দেশজ উৎপাদন) অর্জন করা খুবই কঠিন হবে বলে আশঙ্কা জানান তিনি।

বাংলাদেশ নিট পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিকেএমইএ) সভাপতি ও বিবিবিএফ-এর আরেক সদস্য ফজলুল হক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "সরকারিভাবে স্বীকার করা হোক বা না হোক, দেশে যে বিনিয়োগ কমে গেছে এতে কোনো সন্দেহ নেই। তার প্রমাণ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি সংক্রান্ত এই তথ্য।"

ফজলুল হক বলেন, "কোনো দেশে বিনিয়োগ বাড়ছে, না কমছে তা দেখার প্রধান মাপকাঠি হচ্ছে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি। বিনিয়োগ বাড়লে এ ধরনের যন্ত্রপাতির আমদানি বাড়বে। আর মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি কমে গেলে স্বাভাবিক নিয়মেই বিনিয়োগ কমে যাবে।"

"গ্যাস ও বিদ্যুৎ সমস্যার কারণে শিল্প উদ্যোক্তারা নতুন শিল্প স্থাপনের ব্যাপারে আগ্রহ দেখাচ্ছে না। এ কারণেই মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি কমে গেছে" এ বিশ্বাস ব্যক্ত করে তিনি বলেন, "চালু শিল্প-কারখানাগুলোই গ্যাস-বিদ্যুৎ সমস্যার কারণে ঠিকমতো চলছে না।"