ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Thursday, 06 March 2014 15:45

কাঁচাবাজার ঊর্ধ্বমুখী

Rate this item
(0 votes)

ঢাকা: দেশের কাঁচামালের সবচেয়ে বড় পাইকারি ও খুচরা বাজার কারওয়ান বাজারে কাঁচামালের দাম এখন ঊর্ধ্বমুখী। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বেশির ভাগ কাঁচামালের দাম কেজিপ্রতি পাঁচ থেকে ১৫ টাকা বেড়েছে।

রোববার সকালে সরেজমিনে কারওয়ান বাজার ঘুরে পাওয়া গেছে এ তথ্য

কারওয়ান বাজারের কাঁচামালের খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে টমেটো ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি, সিম ৩৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, ফুলকপি প্রতি পিছ ২০ টাকা, বাঁধাকপি ১৫ থেকে ২০ টাকা, শালগম ১৫ টাকা,

করল্লা ৭০ টাকা, ঢেড়শ ৬০ টাকা, পেপে ১২ টাকা, খিরা ২০ টাকা, শঁসা ৪০ টাকা, মটরশুটি ১০০ টাকা, সিম বিচি ৬০ টাকা, ধনিয়া পাতা ৩৫ টাকা, ঝিঙ্গা ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা, পটল ৭০ টাকা, কাঁচামরিচ ৫০ টাকা, লাউ ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কুমড়া মাঝারি আকারের ৫০ টাকা।

দাম বাড়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে মো. আজিজ মিয়া নামে একজন ব্যবসায়ী বাংলামেইলকে বলেন, ‘কাঁচামালের কোনো ইস্টিশন নাই। মাল কম আসলে দাম বেশি আবার বেশি আসলে দাম কম। এখন মাল আগের চেয়ে কম পাওয়া যাচ্ছে তাই দাম বেশি। কোনো কোনো মালের গত সপ্তাহের চেয়ে ৫-৬ টাকা এবং কোনো কোনো মাল ১০-১২ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে।’

কাওরান বাজরে বাজার করতে আসা খাদ্যবিভাগের সহ-উপখাদ্য পরিদর্শক মোসলেম উদ্দিন সরকার বাংলামেইলকে বলেন, ‘গত সপ্তাহে দাম অনেক কম ছিল, সে তুলনায় এখন সবকিছুর দামই বেশি। উপজেলা নির্বাচনের কারণে গাড়ি আসতে পারছে না বলে দাম বেশি হতে পারে।’

 

এদিকে পাইকারি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, টমেটো ১২০ টাকা পাল্লা(পাঁচ কেজি), সিমের পাল্লা  ১৩০ টাকা, খিরা একপাল্লা ৫০ টাকা, শসা ১২০ টাকা, কাঁচামরিচ ২০০ টাকা, ধনিয়া পাতা ১২০ টাকা, গাঁজর ৬০ টাকা, মিষ্টি আলু ১৩৫ টাকা পাল্লা।

বাজারে সবচেয়ে কমদাম গোলআলু, কেজি ১০ টাকা আর পাল্লা ৪৫ টাকা।

কাঁচামালের পাশাপাশি মাছের দামও চড়া। গত সপ্তাহের থেকে এ সপ্তাহে মাছের দামও কেজিপ্রতি ২০-৩০ টাকা বেড়েছে বলে জানা গছে।

বাজারে মাছের মধ্যে রুই ৪০০ টাকা কেজি, নলা ১৬০ টাকা, পাংগাস ১৪০, তেলাপিয়া ১৬০, চিংড়ি ৬০০ থেকে ৯০০ টাকা কেজি, শিং কেজি ৭০০ টাকা, শোল কেজি ৫০০ টাকা, ছোট মাছ ১২০ টাকা কেজি, মাঝারি সাইজের একহালি ইলিশ দুহাজার টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

গত সপ্তাহের চেয়ে মাছের দাম বেশি কিনা জানতে চাইলে মাছ বিক্রেতা মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ‘আগের চেয়ে বাজার বেশি। জায়গাতেই ২০ থেকে ৩০ টাকা বেড়েছে। তবে মাছ ও কাঁচামালের দাম বাড়লেও  মাংস, পেঁয়াজ, রসুন, আদার দাম স্থিতিশীল রয়েছে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে ফার্মের মুরগি কেজি দেড়শ টাকা, গরুর মাংস ২৭০ টাকা, রসুন দেশি ৪০ ও ইন্ডিয়ান রসুন ৭০ টাকা, পেঁয়াজ ২৫ টাকা এবং আদা ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।  

 

Last modified on Monday, 10 March 2014 00:49