ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Monday, 18 August 2014 23:23

অন্য খাতেও শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া

 

 

 

কৃষিখাতের বাইরে অন্যান্য খাতেও বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিবে মালয়েশিয়া। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবও দেশটির মন্ত্রিসভা অনুমোদনও করেছে।

 

সোমবার প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইঞ্জনিয়িার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে এসব কথা জানিয়েছেন, দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী রিচার্ড রায়োট আনাক জায়েম। আর প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী জানিয়েছেন, শুধু নিবন্ধন হয়েছে, এমন শ্রমিকদেরই জিটুজি পদ্ধতিতে মালয়েশিয়ায় পাঠাবে সরকার।

নানা অনিয়মের কারণে অন্তত ৩ বার বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়া বন্ধও করলেও ২০১২ সালে জিটুজি প্রকল্পের আওতায় সরকারীভাবে শ্রমিক পাঠানোর চুক্তি করে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকার। কিন্তু এই প্রকল্পের আওতায় ১৪ লাখ শ্রমিকের নিবন্ধন হলেও মালয়েশিয়া যেতে পেরেছে ৫ হাজারেরও কম শ্রমিক।

 

বাকিরা চরম হতাশায়। এমন একটা পরিস্থিতিতে ঢাকা সফরে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী ১০ সদস্যের এক প্রতিনিধি দল নিয়ে বৈঠক করেছেন, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সঙ্গে।

 

বৈঠক শেষে মালয়েশিয়ার মানব সম্পদ মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, মালয়েশিয়ার উন্নয়নের স্বার্থেই তারা বিদেশী শ্রমিক নিতে চায়। সম্প্রতি কৃষি খাতের বাইরে বাংলাদেশী শ্রমিকরা কাজ করতে পারবে এমন একটি প্রস্তাব তাদের মন্ত্রী সভায় পাশ করেছে। মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী রিচার্ড রায়োট আনাক জায়েম আরো জানান, বাংলাদেশ থেকে হাউজ ম্যানেজারও নিতে চায় মালয়েশিয়া।

 

তবে জিটুজি প্রকল্পের ধীরগতির কথা উল্লেখ করে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন জানান, মালয়েশিয়ায় শ্রমিক চাইলে শ্রমিকদের সরকারীভাবেই যেতে হবে। এক্ষেত্রে নিবন্ধন নেই এমন শ্রমিকদের মালয়েশিয়া যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।