ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Tuesday, 06 May 2014 23:16

ঢাকা মেডিকেল ডাক্তারদের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের সংঘর্ষ Featured

লিফটে ওঠাকে কেন্দ্র করে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন ডাক্তারদের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের সংঘর্ষ বাধে। এসময় খবর সংগ্রহে গেলে সাংবাদিকদের ওপরও চড়াও হয় চিকিৎসকরা। এ ঘটনার প্রায় ৩ ঘণ্টা অচল হয়ে পড়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন রোগীরা। পরে হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর বৈঠকের পর খুলে দেয়া হয় জরুরি বিভাগ।

এদিকে, সংঘর্ষের ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডাক্তারদের তিন ঘণ্টার সাময়িক কর্মবিরতিতে এক পর্যায়ে তালা ভেঙ্গে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করেন রোগীর স্বজনরা। দূর দূরান্ত থেকে আসা রোগীরা পড়েছিলেন চরম ভোগান্তিতে।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মেডিকেলের ডাক্তারদের জন্য নির্ধারিত লিফটে রোগীর স্বজন নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র ওঠার ঘটনায় ইন্টার্ন ডাক্তারদের বাকবিতন্ডা হয়। পরে হাতাহাতির এক পর্যায়ে ঐ দুই শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে আহত করেন ইন্টার্ন ডাক্তাররা।

ঘটনার ভুক্তভোগী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মিরাজ বলেন, লিফটে রোগীর স্বজন নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র ওঠার পর কয়েকজন এসে বলেন আপনারা বের হয়ে হন। এরই মধ্যে কয়েকজন এসে মার-ধোর শুরু করে।

এ জেরে জরুরী বিভাগে ভাংচুর চালায় কয়েক যুবক। এতে হাসপাতালে জরুরি বিভাগসহ চিকিৎসাসেবা বন্ধ করে গেটে তালা দিয়ে দেয় ডাক্তাররা। এদিকে, এ ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে বেলা ১টার দিকে সাংবাদিকদের উপরও চড়াও হয় ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

এটিএন নিউজের ভিডিও জানালিস্ট হিমেল বলেন, 'আমরা যখন সংবাদ সংগ্রহ করি তখন তারা লাঠি সোটা নিয়ে আমাদের দিকে তেড়ে আসে। আমরা দৌঁড়ে বাইরে চলে আসলেও তারা এসে আমাকে ধাক্কা দেয় এর ফলে আমার ক্যমেরা ভেঙে যায় এবং আমিও আহত হই।'

পরিস্থিতি সামাল দিতে হাসপাতালের মূল ফটক আটকে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অবস্থান নেয় আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠকের পরে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ খুলে দেয়া হয়। আর এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, 'সংবাদিকদের উপর হামলার বিষয়টি আমার জানা নেই। বিষয়টি জেনে আমরা অবশ্যই অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।'

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর কাছে ঢাকা মেডিকেল কলেজে নিরাপত্তা জোরদার করার দাবি জানান।