ঢাকা,শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০১৫, ২৯ ফাল্গুন ১৪২১, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৬

Friday, 18 April 2014 16:06

গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের পোকায় আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই

রাজধানীর গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের ছড়িয়ে পড়া পোকায় আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়েছেন কীট তত্ত্ব বিশেষজ্ঞরা। গাছের জন্য ক্ষতিকারক হলেও সংস্পর্শে মানুষের আক্রান্ত হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন তারা। এছাড়াও কীটনাশক দিয়ে পোকার দামনে গ্রীষ্মকালীন ছুটি ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার সকালে গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজে গিয়ে দেখা যায়, নিজ উদ্যোগে পোকা দমনে কাজ করছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। জায়ান্ট মিলিবাগ গ্রুপের এই পোকা মার্চ থেকে এপ্রিল মাসে ডিম পাড়ার জন্য মাটিতে নেমে আসে। আর এপ্রিল থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত তারা মাটিতে থাকে। এ কারণে মাটিতে গর্তখুড়ে মাটির নিচে পোকার প্রজননের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণী বিজ্ঞান বিভাগ বলছে, এই পোকা মানুষের জন্য ক্ষতিকারক নয়। বাংলাদেশে এই পোকার বিস্তার গত কয়েক বছর ধরে দেখা দিয়েছে বলেও জানালেন এই বিভাগের প্রধান। তিনি বলেন, 'আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই কারণ তারা বিষাক্ত নয়।'

অন্যদিকে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কীটতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. রজ্জ্বব আলী জানালেন , এ পোকা ফলজ গাছের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক। আম কাঁঠাল তেঁতুলসহ প্রায় ১০০ প্রজাতির ফল এই পোকার আক্রমণে বিপর্যয়ের শিকার হতেপারে।

তিনি বলেন,'আমরা নিজেরা এই বিষয়টি নিয়ে বেশ আতঙ্কিত, ফসল এবং ফলের স্বাভাবিক বিস্তারের জন্য এটি হুমকিস্বরূপ, এই বিষয়ে সরকারের এখনই পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।'

ফলজ বৃক্ষের ক্ষেত্রে মহামারি রোধে সবার সম্মিলিত উদ্যোগের তাগিদ দিলেন এই কীটতত্ত্ববিদ।